অনলাইনে আয়

সোশাল মিডিয়া মার্কেটিং করে ইনকাম করুন

💵 সোশাল মিডিয়া মার্কেটিং কি?

মার্কেটিং করার মাধ্যমে সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং সাইটগুলো থেকে ভিজিটর নিজের সাইটে ভিজিটির ড্রাইভ করা যায়। আপনার ওয়েব সাইটে ভিজিটর বাড়ানোর জন্য সোশাল মিডিয়া একটি বড় উৎস। কনটেন্ট শেয়ার করার মাধ্যমে ভিজিটর কে আকৃষ্ট করা যায়। উপরন্তু ভিজিটরকে আপনার কনটেন্টে সন্তুষ্ট করে শেয়ারিংয়ের মাধ্যমে আরও বেশি মানুষের কাছে ছড়িয়ে দেওয়া সম্ভব। যা আপনার সাইট বা প্রোডাক্টের সেল বাড়ানোর জন্য অত্যান্ত গুরুত্বপূর্ণ।

💵সোশাল মিডিয়া মার্কেটিং কেনো করবেন:

আপনার ওয়েবসাইটের জন্য যদি প্রচুর ইউনিক ভিজিটর এবং আপনার প্রোডাক্ট এর যদি সেল বাড়াতে হয় তাহলে সোশাল মিডিয়া মার্কেটিং এর কোনো বিকল্প নেই। কারন প্রতিদিন প্রায় কয়েক বিলিয়ন মানুষ সোশাল প্ল্যাটফর্মে  সময় দিচ্ছে। তাই প্রোডাক্ট মার্কেটিং বা ব্রান্ড তেরি করার জন্য সোশাল মিডিয়া মার্কেটিং এর গুরত্ব অপরিহার্য।

💵 সোশাল মিডিয়া মার্কেটিং এর কাজটা কতটা সহজ?

সোশাল মিডিয়া মার্কেটিং এ কিভাবে এগোতে হয়। কিভাবে মার্কেটিং চালাবেন তা জানতে বা শিখতে হয়। কিন্তুু ঠিক এই স্থানে আমাদের দুর্বলতা। যার কারনে সোশাল মিডিয়া মার্কেটিং এ সবাই সফলতা পাচ্ছে না।
যারা ক্ষুদ্র ব্যাবসায়ী,আনলাইন মার্কেটার যাদের কাজ অনলাইন নির্ভর,তাদের কে অনলাইনের মাধ্যমে নিজের প্রোডাক্ট এর অথবা ওয়েবসাই এর প্রচার চালানোর প্রয়োজন হয়। আপনি যদি সোশাল মিডিয়ায় একটিভ থাকতে না পারেন তাহলে আপনি সোশাল মিডিয়া মার্কেটিং এ  সফল হতে পারবেন না।
আগেরকার দিনের টেলিভিশনের বদলে আপনি এখন নিজের প্রডাক্ট এর প্রচার সোশাল মিডিয়া তে চালাতে পারবেন। বর্তমান সময়ের সবচেয়ে পপুলার সোশাল মিডিয়া গুলো হলো:- ফেসবুক, টুউটার, গুগল প্লাস, লিংকডইন, পিন্টারেস্টে ইত্যাদি। এই সোশাল মিডিয়া সাইট গুলো থেকে আপনার প্রডাক্ট এর বিঞ্জাপন চালাতে পারবেন।
এগুলোর কোনটা আপনার কাজে লাগবে এবং কোনটা কাজে লাগবে না এটা আপনার উপর নির্ভর করে। এজন্য সোশাল মিডিয়া  মার্কেটিং করার জন্য মনে রাখতে হবে, আপনার পণ্য ও সেবার প্রচার বাড়াতে সম্ভাব্য ক্রেতা বা সেবা গ্রহীতাদের কাছে আপনাকে পৌছাতে হবে। আর সম্ভাব্য ক্রেতা ও সেবা গ্রহীতাদের কাছে পৌছানোর জন্য আপনাকে কিছু কাজ করতে হবে।

যেমন:-

১.আপনার সোশাল মিডিয়া নেটওয়ার্ক এ শুধু লোক না বাড়িয়ে উপযুক্ত ক্রেতা কে টার্গেট করুন।

২.আপনার সোশাল মিডিয়া নেটওয়ার্ক এ সুন্দর সুন্দর ছবি এবং আর্কষনীয় কন্টেন্ট থাকতে হবে।

৩. আপনার কোম্পানি ও ব্যবসায়ের জন্য একটি ইউনিক ও সহজে মনে রাখা যায় এমন নাম রাখতে হবে। বেশিরভাগ সোশ্যাল মিডিয়া সাইটে আপনার পেইজ, কমিউনিটি কিংবা গ্রুপের জন্য বিশেষ টুলস রয়েছে। এগুলোর সঠিক ব্যবহার জানতে হবে।

৪. আপনার নেটওয়ার্কের উন্নয়নে সম্পৃক্তদের কাছ থেকে ফিডব্যাক নিন ও সেই অনুযায়ী এগিয়ে যান।

যে কারনে সোশাল মিডিয়া মার্কেটিং করবেন:-
১.ব্রান্ড দাড় করানোর জন্য।

২.ওয়েবসাইটে ট্রাফিক বাড়ানোর জন্য।

৩.কম খরচে বেশি লাভের জন্য।

৪. কাস্টমার ট্রাফিক বাড়ানোর জন্য।

৫.ট্র্যাকিং এবং মনিটর করার জন্য।

৬. কাস্টমারের সাথে আরও ভালো সম্পর্ক তৈরি করার লক্ষ্যে।

৭.নেটওয়ার্ক তৈরি করার জন্য।

5+

Related Articles

29 Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Close
Close

Adblock Detected

Please consider supporting us by disabling your ad blocker