আন্ড্রইড ডেভেলপিং
Trending

ক্যারিয়ার সুরু করুন অ্যান্ড্রয়েড ডেভেলপার হিসেবে । খুটিনাটি সকল বিষয় জেনে নিন।

বর্তমানে এন্ড্রয়েডফোন ব্যাবহারকারির সংখ্যা দিন দিন বাড়তেছে। সকলের হাতে রয়েছে ছোট বড় অনেক ধরনের স্মার্টফোন । সুতরাং এই সুজোগ টাই হতে আরে আপনার ক্যারিয়ার ডেভেলপমেন্ট এর বড় সুজোগ। এন্ড্রয়েড ফোন এর তুমুল জনপ্রিয়তার কারনে জনপ্রিয় হয়ে উঠছে বিভিন্ন এন্ড্রয়েড অ্যাপ এর ব্যাবহার। আর এই অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ ডেভেলপার দের জনপ্রিয়তা আকাশচুম্বি। আপনি যদি অ্যান্ড্রয়েড ডেভেলপার হিসেবে নিজের ক্যারিয়ার ডেভেলপ করতে পারেন তাহলে আর আপনাকে কখনো পিছনে ফিরে তাকাতে হবে না।

আজকে এই পোস্টে আমরা আলোচনা করবো একজন অ্যান্ড্রয়েড ডেভেলপার হিসেবে আপনি কিভাবে  কত টাকা আয় করতে পারবেন। এবং কিভাবে একজন অ্যান্ড্রয়েড ডেভেলপার হতে পারবেন।

এন্ড্রয়েড ডেভেলপমেন্ট শেখার জন্য আপনাকে অবশ্যই আপনাকে এন্ড্রয়েড এর প্রোগ্রামিং ভাষা শিখতে হবে। এ ছাড়া অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ ডেভেলপমেন্ট এর যে সফটাওয়ার গুলো রয়েছে সেগুলো সম্পর্কে সুস্পষ্ট ধারনা থাকতে হবে। সাধারনত অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ তৈরি তে আমরা এন্ড্রয়ে,  জাভা,জাভা স্ক্রিপ্ট, কটলিন, সহ বিভিন্ন ধরনের প্রোগ্রামিং ভাষা ব্যাবহার করি। আপনি যদি এন্ড্রয়েড ডেভেলপার হতে চান তাহলে আপনাকেও এন্ড্রয়েড ডেভেলপমেন্ট এর জন্য এই ধরনের প্রগ্রামিং ভাষা শিখতে হবে। এখন বলতে পারেন এই গুলো আমরা কোথা থেকে শিখবো?

সাধারণত আপনি অনলাইন সহ বিভিন্ন আই টি সেন্টার থেকে এন্ড্রয়েড ডেভেলপমেন্ট এর কোর্স এর মাধ্যমে শিখতে পারবেন। কিন্তু আমার ব্যাক্তিগত মতামত যদি শেয়ার করি তাহলে আপনি এই ধরনের কোর্স এর মাধ্যমে সুধু মাত্র ব্যাসিক শিখতে পারবেন। ভালো মানের ডেভেলপার হতে হলে আপনাকে অবশ্যই  বাসায় প্রচুর প্রাক্টিস করতে হবে। এবং প্রত্যেকটি প্রগ্রামিং ভাষা ভালো ভাবে শিখতে হবে। মোটামুটি ৬-৭ মাস এই বিষয়ে স্টাডি করলে আপনি যে কোন ধরনের অ্যাপ ডেভেলপমেন্ট করতে শিখে যাবেন। আর একবার যদি আপনি অ্যাপ ডেভেলপমেন্ট শিখতে পারেন তাহলে আপনার ক্যারিয়ার আপনি নিজেই অনুভব করতে শিখবেন।

অ্যান্ড্রয়েড ডেভেলপাররা কিভাবে আয় করে?

সকলের মনে একটা প্রশ্ন আসতে পারে কিভাবে আয় করবেন। আপনি একবার এন্ড্রয়েড ডেভেলপমেন্ট শিখে গেলে আপনাকে আর পিছনে তাকাতে হবে না। টাকা ইনকামের পথ আপনি নিজেই বের করে নিতে পারবেন। আগেই বলেছি মার্কেটপ্লেসে এন্ড্রয়েড ডেভেলপার দের চাহিদার কমতি নেই। আপনি খুব সহজেই ফ্রিল্যান্সিং সুরু করতে পারবেন। সুধু মাত্র অ্যাপ ডেভেলপমেন্ট করেই প্রতিমাসে ১-২ লাখ টাকা আয় করতে পারবেন।

নিজেই বিভিন্ন ধরনের অ্যাপ তৈরি করে সেগুলো প্লেস্টোরে আপলোড দিয়ে টাকা আয় করতে পারবেন। প্লেস্টোরে অ্যাপ আপলোড দিয়ে আপনি দুই রকম ভাবে আয় করতে পারবেন ১) পেইড অ্যাপ হিসেবে অ্যাপ বিক্রয় এর মাধ্যমে ২) আপনার অ্যাপ এ বিভিন্ন ধরনের বিজ্ঞাপন প্রচার এর মাধ্যমে। সব থেকে মজার বিষয় প্লেস্টোরে অ্যাপ আপলোড করে আপনি বসে বসে আয় করতে পারবেন । সুতরাং আপনি ক্যারিয়ার এর সাথে সাথে এক্সট্রা কিছু টাকা প্রতিমাসে আয় হতে থাকবে। যেটার পরিমাণ মাসে ৫০-৮০ হাজার টাকা এর বেশি ও হতে পারে।

এ ছাড়া আপনি বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের ডেভেলপার হিসেবে জব করতে পারবেন। তাছাড়া আপনি চাইলে এন্ড্রয়েড ডেভেলপমেন্ট  এর উপর বিভিন্ন অনলাইন ভিত্তিক কোর্স বিক্রয় এর মাধ্যমে টাকা আয় করতে পারবেন। সুতরাং এক কথায় বলা জাই অ্যান্ড্রয়েড ডেভেলপমেন্ট হতে পারে আপনার অনলাইন ক্যারিয়ারের সুবর্ণ সুজোগ।

আসা করি পোস্ট টি আপনাদের ভালো লেগেছে ভালো লাগলে একটি শেয়ার করবেন। এবং কমেন্ট করে আপনার মন্তব্য শেয়ার করবেন।  আপনাদের ভালোবাসা আমাকে নতুন কিছু শেয়ার করতে অনুপ্রেরণা যোগাবে।

 

 

 

 

 

2+
Tags

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Close
Close

Adblock Detected

Please consider supporting us by disabling your ad blocker